Home / বাংলাদেশ / ‘খাদিজার জয় হোক, আমার ফাঁসি হোক’ আদালতে আলোচিত সেই বদরুল

‘খাদিজার জয় হোক, আমার ফাঁসি হোক’ আদালতে আলোচিত সেই বদরুল

সিলেটে বহুল আলোচিত খাদিজা হত্যাচেষ্টা মামলার আসামি বদরুল আলম বলেছেন, খাদিজার জয় হোক, আমার ফাঁসি হোক। আজ রোববার (১১ ডিসেম্বর) স্বাক্ষীদের স্বাক্ষ্য গ্রহণের জন্য বদরুলকে আদালতে নেয়ার সময় আদালত চত্বরে সংবাদকর্মীদের উদ্দেশে বদরুল একথা বলেন।
রোববার পৌনে এগারো টার দিকে বদরুলকে আদালতে নেয়া হয়। চাঞ্চল্যকর এই মামলার দ্বিতীয় দিনে ১৪ জনের সাক্ষ্যগ্রহণ করেছেন আদালত। সকাল ১১টায় সিলেটের মূখ্য মহানগর হাকিম সাইফুজ্জামান হিরোর আদালতে সাক্ষ্যগ্রহণ শুরু হয়।

১৪ জনের মধ্যে খাদিজার মা, বাবা, মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এবং হামলাকারী ছাত্রলীগ নেতা বদরুল আলমের স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি গ্রহণকারী ম্যাজিস্ট্রেটও ছিলেন।

আদালতের অতিরিক্ত পাবলিক প্রসিকিউটর (এপিপি) মাহফুজুর রহমান এসব তথ্য জানান।

এপিপি মাহফুজুর রহমান আরো জানান, মামলার ৩৬ জন সাক্ষীর মধ্যে গত ৫ ডিসেম্বর ওই মামলার বাদিসহ ১৭ জন আদালতে সাক্ষ্য দেন।
এর আগে গত ৮ নভেম্বর এই মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা সিলেট নগরীর শাহপরাণ থানার উপপরিদর্শক (এসআই) হারুনুর রশীদ আদালতে চার্জশিট দাখিল করেন। ১৫ নভেম্বর আদালত চার্জশিট গ্রহণ করেন। গত ২৯ নভেম্বর আদালত বদরুলের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করে বিচার শুরুর নির্দেশ দেন।

উল্লেখ্য, গত ৩ অক্টোবর সিলেট সরকারি মহিলা কলেজের শিক্ষার্থী খাদিজা বেগম নার্গিসকে চাপাতি দিয়ে কুপিয়ে গুরুতর আহত করে শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতি বিভাগের অনিয়মিত ছাত্র ও শাবি ছাত্রলীগের সহ-সম্পাদক বদরুল আলম। ঘটনার পরপরই শিক্ষার্থীরা বদরুলকে আটক করে পুলিশের হাতে তুলে দেন। এ ঘটনায় খাদিজার চাচা আবদুল কুদ্দুস বাদী হয়ে বদরুলকে একমাত্র আসামি করে মামলা দায়ের করেন।

About Abul Fazal Azad

Check Also

349

প্রথম বারের মতো শক্তিশালী ক্ষেপণাস্ত্রের পরীক্ষা চালাল বাংলাদেশ দেখুন-(ভিডিওতে)

প্রথম বারের মতো শক্তিশালী ক্ষেপণাস্ত্রের পরীক্ষা চালাল বাংলাদেশ দেখুন-(ভিডিওতে) প্রথম বারের মতো শক্তিশালী ক্ষেপণাস্ত্রের পরীক্ষা …

249

প্রথমবারের মতো মিসাইল উৎক্ষেপণ করলো বাংলাদেশ সেনাবাহিনী

বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর অস্ত্র ভাণ্ডারে প্রথমবারের মতো যুক্ত হয়েছে ‘এফএম-৯০’ মিসাইল। আজ মঙ্গলবার দুপুরে এই মিসাইলের …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *