Home / ভ্রমণ / ঈদের ছুটিতে দার্জিলিং ভ্রমণ (পর্ব-১)

ঈদের ছুটিতে দার্জিলিং ভ্রমণ (পর্ব-১)

দার্জিলিং ভ্রমণ মানেই যেন মেঘের মাঝে বিচরণ। আমাদের দেশের মানুষ পারিবারিক ভ্রমণে পাশের দেশ ইন্ডিয়ার যে অঞ্চলটি সবচেয়ে বেশী ভ্রমণ করেন তা হল দার্জিলিং। বহনযোগ্য খরচে কাছাকাছি ভ্রমণে আসলেই দার্জিলিং এর জুড়ি নেই। আসুন দেখে নিই দার্জিলিং এর জনপ্রিয় স্পটগুলো-

টাইগার হিল
টাইগার হিলে সবাই যায় সূর্যদয় দেখতে। আর তা দেখা জন্য বের হতে হয় ভোর চারটায়। টাইগার হিল দার্জিলিং এর সবচেয়ে উঁচু যায়গা। মূল টাউন থেকে প্রায় ১১ কিলোমিটার দূর। আর জীপে করে পৌছাতে প্রায় ৪০ মিনিটের মত লাগে। অনেক মানুষ যায় ঐখানে। টিকেট কাটতে হয়। টিকেট কেটে আরো অনেক দূর হেঁটে যেতে হয়। পাহাড়ে হাঁটা যথেষ্ট কষ্টকর, তারপর ও সূর্যদয় দেখার জন্য সবাই টাইগার হিলে জড়ো হয়।

বাতাসিয়া লুপ
বাতাসিয়া লুপে কিছু ফুল গাছ সুন্দর করে সাজানো আছে। এটা ছোট রেইল লাইনের একটা রাস্তা বা লুপ। যেটা সুন্দর, তা হচ্ছে বাতাসিয়া লুপ থেকে দার্জিলিং শহরের ভিউ। এখান থেকে দার্জিলিং এর অনেক অংশের অসাধারণ ভিউ দেখা যায়।

Japaneese Peace Pagoda & Japanies Temple
জাপানি এই প্যাগোডা দেখে যাবেন অবশ্যই। ধবধবে সাদা ভিন্ন ধাঁচের এই প্যাগোডা নিঃসন্দেহে মুগ্ধ করবে আপনাকে। প্রবেশমুখে রয়েছ এদু’টি সিংহ মূর্তি। ভেতরে বৌদ্ধ মূর্তি এবং ধর্মীয় আবেশ একটা নীরব শান্তির পরিবেশ তৈরি করেছে।

Himalayan Mountaineering Institute:
এভারেস্টে যারা উঠতে চায়, তাদের জন্য HMI তীর্থযাত্রার মত। এখানে ট্রেনিং দেওয়া হয়। থাকার ব্যবস্থা সহ সব কিছু আছে। সাথে রয়েছে মিউজিয়াম। এখানকার সব সংগ্রহ এভারেস্ট সম্পর্কিত। এ ইন্সটিটিউটটি Tenzing Norgay এর সন্মানে করা হয়। মিউজিয়ামের সামনে Tenzing Norgay এর একটা স্ট্যাচু রয়েছে।

কেবল কার
কেবল কার থেকে দার্জিলিংকে দেখার অভিজ্ঞতা এক ভিন্ন রকম আনন্দ দেবে আপনাকে। মোট ৪ কিলোমিটারের এই আকাশ ভ্রমণ হয়ে থাকবে চিরস্মরণীয়। একটি কারে ৬ জন করে ওঠা যায়। কেউ একা থাকলে অন্য পরিবার বা দলের সাথে মিলে উঠতে হয়।

লিখেছেন
আফসানা সুমী
ফিচার রাইটার, প্রিয় লাইফ
প্রিয়.কম

About Editor

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *